গোপন তথ্য ফাঁস করে ভারতীয় দলকে নিয়ে বো’মা ফাটালেন দীনেশ কার্তিক!তো’লপাড় ভারতীয় ক্রিকেট!

২০২২ সালে টিম ইন্ডিয়ার জন্য একটি খারপ বছর ছিল। দলটি এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হয়েছিল এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ১০ উইকেটের পরাজয়ের সম্মুখীন হয়েছিল। এছাড়াও ডিসেম্বরে ভারত বাংলাদেশের কাছে ১-২ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজে পরাজয়ের মুখোমুখি হয়েছিল। দলটি সীমিত ওভারের ফর্ম্যাটে আগের বছরের শেষের দিকে অধিনায়কত্বে পরিবর্তন এনেছিল এবং রোহিত শর্মা লাগাম নিয়েছিলেন, কিন্তু বিশ্বব্যাপী ইভেন্টগুলিতে দলকে বারবার ব্যর্থতা সম্মুখীন হতে হয়েছিল। যা ভক্তদের কাছে হতাশার কারণ হয়েছিল।

ভক্তরা এরপরে চাহালের প্রসঙ্গ তুলে ধরেছিলেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যুজবেন্দ্র চাহাল দলে থাকলেও একটি ম্যাচও খেলেননি। যুজবেন্দ্র চাহাল স্কোয়াডের একটি অংশ ছিলেন কিন্তু পুরো টুর্নামেন্টে দলের হয়ে একটি ম্যাচেও খেলেননি তিনি। ভারতের অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান দীনেশ কার্তিক, যিনি টুর্নামেন্টের জন্য স্কোয়াডের অংশ ছিলেন, তিনি এবার এই বিষয় নিয়ে মুখ খুলেছেন।দীনেশ কার্তিক দাবি করেছেন যে চাহালকে খেললে ‘অনেক বড় ক্ষতি’ হত।

তবে তিনি যোগ করেছেন যে প্রত্যেকেরই এখন পিছনে ফিরে তাকানো সুবিধা রয়েছে। ক্রিকবাজের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কার্তিক বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যে সিদ্ধান্তই নেওয়া হোক না কেন, কোচ ও অধিনায়কই নিয়েছেন। প্লেয়িং-১১ নির্বাচন করা হয়েছে তার বিশ্বাসযোগ্য খেলোয়াড়দের কথা মাথায় রেখে। সত্যি কথা বলতে কি, অশ্বিন বিশ্বকাপের শুরুটা ভালোভাবে করলেও শেষটা ভালো করতে পারেননি। হ্যাঁ, চাহাল দলে থাকলে সামনের দলের জন্য অবশ্যই বেশি ক্ষতিকর হতেন।

এটি একটি খুব আকর্ষণীয় নির্বাচন ছিল।’ভারতের সিনিয়র তারকা ক্রিকেটার আরও বলেছেন, ‘সব মিলিয়ে, আমরা যদি বিশ্বকাপ এবং এশিয়া কাপের সামগ্রিক চিত্র দেখি, আমরা টিম ইন্ডিয়ার কাছ থেকে অনেক ভালো আশা করি এবং এটি রাখার সঠিক উপায়।’ টিম ইন্ডিয়া ৩ জানুয়ারিতে অ্যাকশনে ফিরবে।

যখন দলটি তিনটি টি-টোয়েন্টির ম্যাচের সিরিজের প্রথম ম্যাচটিতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে খেলবে। যেখানে হার্দিক পান্ডিয়া দলের নেতৃত্ব দেবেন। দলের শীর্ষ-৩ সিনিয়র খেলোয়াড় – রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি এবং কেএল রাহুলকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে দেখা যাবে না। দলের সহ অধিনায়ক করা হয়েছে সূর্যকুমার যাদবকে।