বিয়ের সঠিক বয়স কখন? আপনার রাশি অনুযায়ী মিলিয়ে নিন

মেষ রাশি : এই রাশির জাতকরা সাধারণত তাঁদের বিয়ে নিয়ে খুব একটা বেশি চিন্তায় থাকেন না। শুভ সময় হিসাবে এই রাশির জাতকদের বিয়ের সময় ২০ থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত। বৃষ রাশি: বৃষ রাশির জাতক-জাতিকারা খুবই রোমান্টিক প্রকৃতির হয়ে থাকেন। আবেগ এবং মনের সঙ্গে যুক্ত থাকেন এই রাশির জাতকরা। তবে সহজে সম্পর্কে যেতে চান না এই রাশির জাতকরা। মনে মিল হলে তবেই সম্পর্কে যেতে চান। এই রাশির ক্ষেত্রে শুভ বিয়ের বয়স ২৫ বছর।

মিথুন রাশি: সিদ্ধান্ত নিতে কিছুটা সময় নেন মিথুন রাশির জাতকরা। কারণ, সম্পর্কে খুব বেশি মন সাধারণত তাঁদের থাকে না। বিবাহের জন্য এই রাশির জাতক এবং জাতিকাদের ক্ষেত্রে শুভ সময় হচ্ছে ৩০ বছর ।কর্কট রাশি: সুখী এবং শুভ দাম্পত্য জীবন কাটাতে চান কর্কট রাশির জাতক এবং জাতিকারা। কাউকে একবার কথা দিলে সহজে কথা ভাঙে না এই রাশির জাতকরা। কর্কট রাশির ক্ষেত্রে বিবাহের শুভ সময় ২০ বছর।

সিংহ রাশি: সাধারণত খুব শান্ত প্রকৃতির হয়ে থাকেন সিংহ রাশির জাতকরা। এরা তত দিন বিয়ে করতে চান না, যতদিন নিজের জন্য সঠিক সঙ্গী খুঁজে পান না ততদিন এরা বিয়ে করতে চান না। সিংহ রাশির ক্ষেত্রে বিবাহের শুভ সময় ২০ থেকে ৩০ বছর। কন্যা রাশি: জীবনসঙ্গী পেলে তবেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন কন্যা রাশির জাতকরা। বিয়ে ক্ষেত্রে এরা বুঝেশুনে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। বিয়ে ক্ষেত্রে শুভ বয়স ২৫ থেকে ৩০ বছর কন্যা রাশির ক্ষেত্রে।

তুলা রাশি: এই রাশির জাতক এবং জাতিকাদের বিয়ে করার ইচ্ছা খুব তাড়াতাড়ি থাকে। কিন্তু তাঁদের কিছু ব্যবহার ভবিষ্যতে জন্য সমস্যায় ফেলতে পারে। তবে একটু চিন্তা করেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত এই রাশির মানুষদের। এই রাশির জাতক জাতিকাদের ২০ বছর বয়সের পরে যে কোনও সময় বিয়ে করা শুভ। বৃশ্চিক রাশি: এই রাশির জাতকরা খুব ভালো প্রেমিক হয়। কিন্তু রাশির জাতক জাতিকাদের জন্য সত্যিকারের সঙ্গী খুঁজে পাওয়া খুবই জরুরি। তবে এরা যখনই মনে করেন প্রকৃত আজীবন সঙ্গী পেয়েছেন, তখনই বিয়ের ক্ষেত্রে চিন্তাভাবনা করেন।

ধনু রাশি: এই রাশির মানুষদের ভেবেচিন্তে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। কারণ সম্পর্কে নানারকম টানাপোড়েন থাকে এই রাশির জাতকদেক। এই রাশির জাতক জাতিকাদের বিয়ের জন্য শুভ সময় ৩০ থেকে ৩৫ বছর বয়স পর্যন্ত।
মকর রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের জন্য তাদের ক্যারিয়ার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে এই লোকেরা তাদের ক্যারিয়ারের পাশাপাশি পরিবারকে সমান গুরুত্ব দেয়। এই রাশির মানুষদের ২০ বছর বয়সে বিয়ে করা শুভ।

কুম্ভ রাশি: এই রাশির মানুষ স্বাধীন প্রকৃতির হয়। এই লোকেরা নিজেদের জন্য শুধুমাত্র এমন অংশীদার চায় যারা তাদের মতো প্রকৃতির। এই রাশির জাতক জাতিকারা সঠিক সঙ্গী পেলেই যে কোন সময় বিয়ে করতে পারেন।মীন রাশি: সবকিছু কল্পনার সঙ্গে চিন্তাভাবনা করা এই রাশির জাতকদের স্বভাব। এই রাশির লোকেরা খুব আবেগপ্রবণ হয়। এজন্য তাদের এমন একজন সঙ্গী দরকার যে তাদের অনুভূতি বুঝতে পারে। সঠিক সঙ্গী পেলে যে কোনো সময় বিয়ে করতে পারেন এই মানুষগুলো।