প্রথম ম্যাচে সেঞ্চুরি করতেই চোখে জল নিয়ে বড়ো মন্তব্য করলেন জসওয়াল, স্যালুট নেটিজেনদের!

ভারতীয় ক্রিকেটারদের নক্ষত্র পুঞ্জতে নতুন তারার জন্ম হল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে জাতীয় দলের হয়ে নিজের টেস্ট কেরিয়ারের প্রথম ম্যাচেই শতরানের গন্ডি টপকালেন জযশস্বী জসওয়াল। বাউন্ডারি মেরে শতরান করেন এই তরুণ ক্রিকেটার। তারপরেই ড্রেসিংরুমে বসে থাকা কোচ রাহুল দ্রাবিড় থেকে প্রাক্তন অধিনায়ক কোহলি এবং প্রায় প্রত্যেককেই উঠে দাঁড়িয়ে নতুন তারকাকে সম্মান জানাতে থাকেন।

গত ১২ জুলাই থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম টেস্ট খেলতে নেমেছ ভারতীয় দল। প্রথম দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাট করতে নেমে ১৫০ রানেই গুটিয়ে যায়। প্রথম দিনই নতুন রেকর্ড করেন টেস্ট ক্রিকেটে আইসিসির এক নম্বর বোলার অশ্বিন। তারপরেই নতুন ধামাকা শুরু করেন যশস্বীরও।‌ তাঁর ইনিংস দেখে বোঝা যাচ্ছিল না যে তিনি জাতীয় দলের প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলতে নেমেছেন। ভারতীয় দল যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য দল ঘোষণা করে, সেই সময় মনে করা হয়েছিল শুভমন গিলই ওপেন করতে নামবেন রোহিতের সঙ্গে।

```

তবে তা যে হবে না ম্যাচের আগে জানিয়ে দেন অধিনায়ক রোহিত। তখন থেকেই একটা প্রশ্ন উঁকি মারতে শুরু করে জসওয়াল কি প্রথম ম্যাচে বিশেষ কিছু করতে পারবেন নাকি ব্যর্থ হবেন? উঠতে শুরু করা এই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে অভিষেকেই সেঞ্চুরি করলেন ২১ বছর বয়সী এই তরুণ।দেখুন ভিডিওতে কি বললেন এই যুব ক্রিকেটার :

প্রথম ম্যাচেই শতরান করে ওঠার পর তিনি বলেন, ‘জাতীয় দলের সুযোগ পাওয়া আমার পরিবার এবং আমার কাছে অনেকটা আবেগপূর্ণ পরিস্থিতি ছিল। শুধু আমার পরিবারের নয়, যারা আমাকে সাহায্য করেছে তাদের জন্যও বটে। এটা অনেক বড় একটা যাত্রা। আমাকে কোনও না কোনও সময় যে কেউ সাহায্য করেছে তাদের সকলকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। এই সাফল্য আমি, মা-বাবাকে দিতে চাই। তারা আমার জীবনে অনেক বড় অবদান রেখেছে। সবে পথ চলা শুরু হয়েছে, এখনও অনেক পথ বাকি।’

```

কঠিন ব্যক্তিগত জীবন থেকে এই পর্যায়ে উঠে আসার জন্য এক অদম্য হার না মানা লড়াই দেখা গিয়েছে যশস্বীর মধ্যে। সব প্রতিকূলতাকে কাটিয়ে ঘরোয়া মরশুম এবং আইপিএলে ক্রমাগত ভালো করে গেছেন তিনি। তার ফল স্বরুপ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে জাতীয় দলের সুযোগ পেয়েছেন। আর সেখানে নির্বাচকদের নিরাশ করেননি তিনি।